২৭ জুন, ২০১৯ | ১৩ আষাঢ়, ১৪২৬ | ২২ শাওয়াল, ১৪৪০


বিবিএন শিরোনাম
  ●  ঈদগাহ উপজেলা হতে যাচ্ছেঃ প্রজ্ঞাপন জারী   ●  রোহিঙ্গারা দেশের নিরাপত্তার জন্য হুমকি হতে পারে: প্রধানমন্ত্রী   ●  ঈদগাঁওতে মাদক ব্যবসায় পুরুষের চেয়ে নারীরা এগিয়ে   ●  অবশেষে বরখাস্ত হলেন ডিআইজি মিজান   ●  নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবির বৃক্ষরোপনকর্মসূচীর শুভ  উদ্বোধন   ●  অধিকাংশ মানুষের সমস্যা চিহ্নিত করে টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে- উখিয়ায় জেলা প্রশাসক   ●  রামুতে বন্য হাতির আক্রমণে বৃদ্ধা নিহত   ●  অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকায় ইসলামপুরের শাহিনকে আদালতে প্রেরণঃবাচ্চুর জামিন না মঞ্জুর !   ●  চকরিয়ায় সাজাপ্রাপ্ত হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার   ●  টেকনাফে ৪টি অস্ত্র ও ১০ রাউন্ড গুলিসহ অস্ত্রপাচারকারী আটক

টংঘরে আটকে রেখে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ, যুবক আটক

পেকুয়ায় এক গার্মেন্টস কর্মীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে মোঃ উসমান গণি নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।রোববার (৯জুন) বিকেলে উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের বদি উদ্দীন পাড়া থেকে পেকুয়া থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) ইয়াকুবুল ইসলাম ভূঁইয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ ওই ধর্ষককে আটক করে। আটক উসমান গণি একই এলাকার মৃত শফি আলমের ছেলে।উপপরিদর্শক (এসআই) ইয়াকুবুল ইসলাম বলেন, ধর্ষিতা ওই গার্মেন্টস কর্মী ১০-১২ দিন আগে ঈদের ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে আসে। গত শুক্রবার (৭জুন) বিকেলে আত্মীয়ের বাড়ী থেকে ফেরার পথে ওই গার্মেন্টস কর্মীকে কৌশলে সিএনজি চালিত অটোরিকশায় তুলে নেয় উসমান গণি। সিএনজি অটোরিকশায় যোগে তাকে একই ইউনিয়নের পালাকাটা এলাকার লবণ মাঠের একটি টংঘরে আটকে রেখে জোরপূর্বক উপর্যুপরি ধর্ষণ করে।পরে ওই গার্মেন্টস কর্মীর আত্মচিৎকারে পার্শ্ববর্তী এলাকার বাসিন্দারা এগিয়ে গেলে ধর্ষণ উসমান গণি পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা ওই গার্মেন্টস কর্মীকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পেকুয়া থানার ওসি জাকির হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ভুক্তভোগী গার্মেন্টস কর্মী থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করলে মামলা রুজু করা হয়। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষণে অভিযুক্ত উসমান গণিকে আটক করে।

এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।